কুষ্টিয়ায় প্রাইভেট না পড়ায় স্কুলছাত্রীকে শিক্ষকের ঝাড়ুপেটা

প্রাইভেট না পড়ায় ক্লাসে পড়া না পারার অজুহাতে স্কুলছাত্রীকে ঝাড়ুর হাতল দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে নির্যাতন করেছে এক শিক্ষক। অভিযুক্ত শিক্ষক মাসুদ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা বিদ্যুৎ বোর্ড মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক। সোমবার (১৮ মার্চ) ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী মেহেরিন নেছা মীম ঝাড়ুর আঘাতে মারাত্মক আহত হলে তাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আহত মেহেরিনের পিতা মুনতাজ আলী লিখিত অভিযোগে বলেন, আমার মেয়ে বিদ্যুৎ বোর্ড মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী মেহেরিন নেছা মীম । তার রোল ৩০। সোমবার ক্লাসে পড়া না পারার অজুহাতে বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. মাসুদ তাকে ক্লাস পরিস্কার করা ঝাড়ুর হাতল দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করেন। ক্লাসের অন্য শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে তাকে মানসিক ভাবেও অপদস্থ করা হয়। আহত অবস্থায় মেয়েটি বাড়িতে ফিরলে তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

মুনতাজ আলীর অভিযোগ, তার মেয়ে ইংরেজি শিক্ষক মাসুদের কাছে প্রাইভেট না পড়ার কারণে পড়া না পারার অজুহাতে কারণে মিমের ওপর শারীরিক নির্যাতন ও অমানবিক আচরণ করেছে। এ ব্যাপারে শিক্ষক মাসুদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন মিমের বাবা মুনতাজ আলী।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে শিক্ষক মো. মাসুদের সাথে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে ভেড়ামারা বিদ্যুৎ বোর্ড মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হুমায়রা বেগম বলেন, সোমবার স্কুল ছুটির আগ মুহুর্তে এ ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুষ্টিয়ার সময়-আ.আ.হ/মৃধা

বিজ্ঞাপন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *