দৌলতপুরে ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদর্গা থেকে আব্দুর রশিদ নাসিম (১৬) নামের এক মেধাবী স্কুল ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয় । সে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের ময়রামপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে এবং আল্লারদর্গা টেসল ইংলিশ ভার্সন স্কুলের দশম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র, তার ক্লাস রোল নং ছিল১।

শনিবার বিকাল ৩ টার সময় উপজেলার আল্লারদর্গা টেসল ইংলিশ ভার্সন স্কূল ভবনের ৫ম তলা থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে এলাকাবাসী ।

এলাকাবাসী জানায়, শনিবার বেলা ৩টার দিকে স্কুলের আবাসিক হলের ছাত্ররা ৬ তলা ভবনের সিড়ি ঘরের টিন সেডের ডাফের সাথে লাইলনের রশির সাথে নাসিমের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার করতে থাকে এলাকার লোকজন ছুটে এসে লাশ উদ্ধার করে।

স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আড়াল করতে তাড়াহুড়া করে তাদের মাইক্রোবাসে দৌলতপুর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা ছাত্রটিকে মৃত ঘোষনা করে। বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিক সেখানে উপস্থিত হলে তাদের জেরার মূখে উপযুক্ত জবাব দিতে ব্যর্থ হয়ে, বেগতিক ভাব বুঝে স্কুলের শিক্ষক কর্মচারীরা লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে আসে, টেসল ইংলিশ ভার্সনর মালিক প্রভাষক জাহাঙ্গীর আলমকে তার মোবাইলে পাওয়া যায়নি। ঘটনার প্রকৃত কারণ সম্পর্কে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্কুলের এক শিক্ষক জানান, নাসিম এক মেয়ের সাথে প্রেম করতো এবং মোবাইলে কথা বলতো স্কুল কর্তৃপক্ষ জানতে পেরে তার মোবাইল কেড়ে নেয় এবং তাকে মারপিট করলে সে অপমান সইতে না পেরে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

খবর পেয়ে নাসিমের পিতা ও আত্বীয় স্বজন হাসপাতালে আসে এবং লাশ দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে, নাসিমের পিতা এলাকার প্রাগপুর ইউিনিয়নের ময়রামপুর গ্রামের নজরুল ইসলাম জানান আমার ছেলের কোন অপরাধ থাকলে আমাকে স্কুল কর্র্তৃপক্ষ জানাবে, তারা আমাকে কিছুই জানায়নি, তারা আমার ছেলেকে নির্যাতন করে মেরে ঝুলিয়ে রেখেছে।

দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জানান লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে, মৃত্যুর প্রকৃত কারণ তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর দায়ের করা হয়েছে।

(Visited 2 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *